পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে...
বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪

সুন্দরগঞ্জে যুবলীগ নেতা জাহিদুল হত্যা : গ্রেপ্তার ৮, রিমান্ডে ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, (সুন্দরগঞ্জ) গাইবান্ধা:
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সোনারায় ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম হত্যা মামলায় মোট ৮ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ও পুলিশ। এর মধ্যে তিনজনকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। আসামিরা হলেন- সামিউল ইসলাম সামু, আনোয়ার হোসেন, জয়নাল মিয়া, মারুফ মিয়া, মঞ্জু মিয়া, মোশারফ হোসেন, মিজানুর রহমান ও মোজাম্মেল হক। বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যা পর্যন্ত হত্যার ৭ দিনের ব্যবধানে দেশের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই ৮ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলা তদন্তকারি কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন চ্যাটাজী জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেছেন। আসামি মারুফের পরিকল্পনায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারনে জাহিদুলকে হত্যার কথা স্বীকার করেন তারা। আসামিরা বিএনপি ও জামায়াত কর্মী বলে জানা গেছে। এর আগে গত মঙ্গলবার ৩ জন আসামির ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন তদন্তকারি কর্মকর্তা। বুধবার সুন্দরগঞ্জ আমলি আদালতে রিমান্ড শুনানি শেষে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়ার ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মাহদী হাসান।

উল্লেখ্য, গত রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে জাহিদুল এবং কবির মিয়া মোটরসাইকেল করে বামনডাঙ্গা থেকে বাড়ি ফিরছিল। উপজেলার শাকামারা ব্রিজের নিকট পৌচ্ছা মাত্রই ৬ হতে ৭ জন দুর্বৃত্ত রশি দিয়ে তাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এলোপাথারি ছুরিকাঘাত এবং মারপিট শুরু করে। এক পর্যায় জাহিদুলের হাত-পায়ের রগ কেটে দেয়। দুর্বৃত্তরা জাহিদুলের সাথে থাকা কবিরকে মারপিট করে মাটিতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। জাহিদুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত আনুমানিক ৩ টার দিকে জাহিদুল মারা যায়।

আরো পড়ুন

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ সংবাদসমূহ

বিশেষ সংবাদ