পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে...
মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানকে শোকজ

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসন

নিজস্ব প্রতিবেদক, (সুন্দরগঞ্জ) গাইবান্ধা:
নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক আশরাফুল আলম সরকার লেবুকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। নোটিশে বৃহস্পতিবার সহকারী জজ আদালতে সশরীর হাজির হয়ে তাঁকে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) গঠন করা নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান ও সুন্দরগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের, সহকারী জজ ওবায়দুল হক রুমি স্বাক্ষরিত নোটিশ বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম সরকার লেবুকে পাঠানো হয়।

কারণ দর্শানোর নোটিশে উল্লেখ করা হয়, গত মঙ্গলবার লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী শামীম হায়দার পাটোয়ারীর পক্ষে উপজেলার বেলকা ইউনিয়নে নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। পথসভায় উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম সরকার লেবু বলেন, ‘মামার বাড়ির আবদার চলবে না। আমরা বুদ্ধিজীবীরা এ উপজেলায় এখনো সভ্য সুশীল সমাজ মারা যাইনি। কোনো বিদেশিনীকে, কোনো অতিথি পাখিকে (স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল্লাহ নাহিদ নিগার) আমরা সুন্দরগঞ্জের এমপি বানাবো না। যখন শীত আসবে বাংলাদেশে দেখবেন সাইবেরিয়ান বার্ডরা সারা পৃথিবী থেকে খাদ্য অন্বেষণে আসবে। খাদ্য অন্বেষণ, শীত শেষ হয়ে যাবে, তারা আবার গন্তব্যস্থলে যাবে। ওইসব পাখিকে স্থান দেবেন না প্রাণপ্রিয় বন্ধুগণ। কোনো অতিথি পাখিকে মূল্যায়ন করবেন না।’

বিষয়টি নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির নজরে এসেছে। ওই বক্তব্যের মাধ্যমে আশরাফুল আলম সরকার লেবু জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণবিধিমালা ২০০৮ লঙ্ঘন করেছেন, যা নির্বাচন-পূর্ব অনিয়ম হিসেবে গণ্য হয়েছে। এ ব্যাপারে কেন তাঁর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হবে না, তা ০৪ ডিসেম্বর অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সশরীর হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে নোটিশে।

আরো পড়ুন

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ সংবাদসমূহ

বিশেষ সংবাদ